মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সাব রেজিস্ট্রার

ঝিনাইদহ সদর  উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার অফিস পরিচিতি:

প্রতিটিউপজেলায় একটি করে সাব-রেজিস্ট্রী অফিসরয়েছে। তবে কোন কোন বড় উপজেলায়একাধিক সাব-রেজিস্ট্রী অফিসরয়েছে। অপরদিকে সিটি কর্পোরেশন এলাকায় একাধিকথানা(পুলিশ স্টেশন)নিয়ে একেকটি সাব-রেজিস্ট্রী অফিসের অধিক্ষেত্র গঠিতহয়েছে।

এই অফিস  আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন ও মহা পরিদর্শক, নিবন্ধন-এর অধীনে পরিচালিত।

 

দপ্তর প্রধানের পদবী:  সাব-রেজিস্ট্রার।

  • কী সেবা কীভাবে পাবেন
  • প্রদেয় সেবাসমুহের তালিকা
  • সিটিজেন চার্টার
  • সাধারণ তথ্য
  • সাংগঠনিক কাঠামো
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা
  • কর্মচারীবৃন্দ
  • বিজ্ঞপ্তি
  • ডাউনলোড
  • আইন ও সার্কুলার
  • ফটোগ্যালারি
  • প্রকল্পসমূহ
  • যোগাযোগ

কি সেবা কিভাবে পাবেন

ক্র:নং

         সেবা

সেবা প্রদান/প্রাপ্তির ক্ষেত্রে অসুবিধা সমুহ

  নাগরিক পর্যায়ে

  সরকারী পর্যায়ে

০১

দলিল সংক্রান্ত পরামর্শ

জনসাধারনকে দলিল রেজিস্ট্রেশনের পূর্বে পরামর্শ ও দলিল প্রস্তুত করারজন্য একজন দলিল লেখক বা উকিলের শরনাপন্ন হতে হয়। অনেক ক্ষেত্রেই দক্ষ দলিললিখকের অভাব রয়েছে। দলিল প্রস্তুত করার জন্য জনগনকে যথেষ্ট সময় ও অর্থব্যয় করতে হয়।

যেকোন ব্যক্তি ইচ্ছা করলে সংশ্লিষ্ট সাব-রেজিস্ট্রারের নিকট থেকে দলিলেররেজিস্টেশন সংক্রান্ত বিষয়ে বিনাখরচে পরামর্শ পেতে পারে। সীমিত জনবলেরকারনে প্রতিটি দলিল রেজিস্ট্রেশনের পূর্বে সংশ্লিষ্ট সকলকে পরামর্শ প্রদানকরা অনেক ক্ষেত্রে সম্ভব হয়না।

 

প্রতিটি অফিসে নির্দিষ্ট পরামর্শ ডেস্ক না থাকায় জনগন পরামর্শ প্রাপ্তির বিষয়ে অবগত নয়।

 

০২

দলিল রেজিস্ট্রেশন

দলিল রেজিস্ট্রেশনের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য প্রমান সংগ্রহ করা জনসাধারনেরজন্য সময়সাপেক্ষ ও ব্যয়সাধ্য বিষয়্। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই জমি হস্তান্তর আইন ওবিধি বিধান এবং জমি রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত খরচ সম্পর্কে জনগনের স্পষ্টধারনা থাকেনা। দলিলের ফি প্রদান বাবদ ব্যাংকে বিভিন্ন দফায় টাকা জমাপ্রদান করে পে-অর্ডার সংগ্রহ করতে যথেষ্ট সময় ও বাড়তি অর্থ ব্যয় করতেহয়।   

জমির মালিকানা সংক্রান্ত স্বয়ংসম্পূর্ন কোন ডাটাবেইজ না থাকায় এবংরেজিস্ট্রী অফিসে জমির মলিকানা সংক্রান্ত আর,ও,আর, না থাকায় উপস্থাপিত তথ্যসমূহ যাচাই করা সম্ভব হয়না।

 

ভিন্ন ভিন্ন দফায় ও  ভিন্ন ভিন্ন পে-অর্ডারে টাকা গ্রহন করা অসুবিধা জনক।

০৩

মূল দলিল সংশ্লিষ্ট পক্ষকে ফেরৎ প্রদান

সাব-রেজিস্ট্রার কর্তৃক দলিলের দাখিল গ্রহনের পর পর্যায়ক্রমে বালাম বইতেমূল দলিলের একটি অবিকল প্রতিলিপি প্রস্তুত করা হয় এবং বিধি অনুযায়ী সুচীপ্রস্তুত করার পর পক্ষকে মূল দলিল ফেরত প্রদান করা হয়্। এই প্রক্রিয়াসম্পন্ন করতে অফিস ভেদে ১৫দিন থেকে ২/৩ বছর সময় লেগে যায়।ফলে জনগনকে মূলদলিল ফেরৎ পেতে এই দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হয়।

ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে দলিল নকলের কাজ ও সূচীর কাজ করতে হয় এবং অনেকক্ষেত্রেই পর্যাপ্ত জনবল ও বালাম বই-এর নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ না থাকায়সংশ্লিষ্ট সাব-রেজিস্ট্রারের পরিস্থিতি উন্নয়নে তেমন কিছুই করার থাকেনা। এক্ষেত্রে সম্পূর্ন রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে সম্পন্নকরা হলে এই দুর্ভোগ লাঘব করা সম্ভব।

০৪

তল্লাশ ও পরিদর্শন

যে কোন ব্যক্তি নির্ধারিত ফি জমা দিয়ে রেজিস্ট্রী অফিস বা সদর রেকর্ডরুমথেকে তল্লাশ কারকের মাধ্যমে বা স্বয়ং সূচী বই তল্লাশ প্রদান পূর্বক কোনসম্পত্তি হস্তান্তরের বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য সংগ্রহ করতে পারে বা বালাম বইপরিদর্শন করতে পারে।

তথ্যসমূহ সূচী বই থেকে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে তল্লাশ করা হয় বলে অনেক বেশীসময় ব্যয় হয় এবং অনেক ক্ষেত্রে সঠিক তথ্য পাওয়া যায়না। তথ্য সমুহ ডাটা বেইজনাথাকায় এই অবস্থার দ্রুত উন্নতি সম্ভব নয়।

০৫

নকল প্রদান

নির্ধারিত ফিস জমাদিয়ে আগ্রহী পক্ষ রেজিস্ট্রীকৃত যেকোন দলিল ও সূচীর নকল তুলতে পারে।

বালাম ও সূচীবই থেকে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে নকল প্রস্তুত করে সরবরাহ করা হয় বলে অনেক বেশী সময় ব্যয় হয়।

০৬

দায়মুক্ত(NEC) সনদ প্রদান

যে কোন ব্যক্তি নির্ধারিত ফি জমা দিয়ে রেজিস্ট্রী অফিস বা সদর রেকর্ডরুম থেকে কোন সম্পত্তির দায়মুক্ত(NEC) সনদ সংগ্রহ করতে পারে।

তথ্যসমূহ সূচী বই থেকে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে তল্লাশ করা হয় বলে অনেক বেশীসময় ব্যয় হয় এবং অনেক ক্ষেত্রে সঠিক তথ্য পাওয়া যায়না। তথ্য সমূহ ডাটা বেইজনা থাকায় এই অবস্থার দ্রুত উন্নতি সম্ভব নয়।

সাব রেজিস্ট্রার এর কার্যালয় কর্তৃক প্রদেয় সেবার বিবরণ

ক্রমিক নং

সেবার ধরণ

সেবা প্রাপ্তির সময়সীমা

সেবা দানকারী কর্মকর্তার পদবী ও ঠিকানা

উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ

০১

দলিল রেজিষ্ট্রি করণ বা মোক্তার নামা তসদিক করণ।

১ দিন

সাব রেজিস্ট্রার

দেবিদ্বার, কুমিল্লা।

জেলা রেজিস্ট্রার

কুমিল্লা।

০২

রেজিষ্ট্রিকরণ অমেত্ম মূল দলিল ফেরত গ্রহণ

অফিস ভেদে ১মাস হইতে ১ বৎসর

সাব রেজিস্ট্রার

দেবিদ্বার, কুমিল্লা।

জেলা রেজিস্ট্রার

কুমিল্লা।

০৩

তসদিককৃত মোক্তার নামা ফেরৎ গ্রহণ।

১দিন

সাব রেজিস্ট্রার

দেবিদ্বার, কুমিল্লা।

জেলা রেজিস্ট্রার

কুমিল্লা।

০৪

দলিলের নকল সংগ্রহ

১হইতে ৭দিন

সাব রেজিস্ট্রার

দেবিদ্বার, কুমিল্লা।

জেলা রেজিস্ট্রার

কুমিল্লা।

০৫

সম্পত্তি হসত্মামত্মর সংক্রামত্ম তথ্য সংগ্রহ

১ হইতে ৭দিন

সাব রেজিস্ট্রার

দেবিদ্বার, কুমিল্লা।

জেলা রেজিস্ট্রার

কুমিল্লা।

০৬

দলিল মুসাবিদাকরণ/প্রস্ত্তত করণ/লিখন বিষয়ক সহায়তা গ্রহণ

১দিন

সনদ প্রাপ্ত দলিল লিখক

সাব রেজিস্ট্রার

০৭

দলিল মুসাবিদাকরণ/প্রস্ত্তত করণ/লিখন বিষয়ক রেজিষ্ট্রিকরণের সহায়তা গ্রহণ

১দিন

সনদ প্রাপ্ত দলিল লিখক

সাব রেজিস্ট্রার

০৮

দলিলের নকল বা তথ্য সংগ্রহের বিষয়ে সহায়তা গ্রহণ

১দিন

সনদ প্রাপ্ত দলিল লিখক

সাব রেজিস্ট্রার

০৯

মূল দলিল সংগ্রহে সহায়থা গ্রহণ

১দিন

সনদ প্রাপ্ত দলিল লিখক

সাব রেজিস্ট্রার

১০

যে কোন আবেদন, দরখাসত্ম ইত্যাদি লিখনে সহায়থা গ্রহণ

১দিন

সনদ প্রাপ্ত দলিল লিখক

সাব রেজিস্ট্রার

বর্তমানে ঝিনাইদহ সদর, উপজেলার সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে কোন গুরুত্বপূর্ন তথ্য নেই।

ছবি নাম মোবাইল
মোঃ আব্দুল হাফিজ ০১৭১২-৭৫৯৭৯৫

ছবি নাম মোবাইল
মোঃ আব্দুল হাফিজ ০১৭১২-৭৫৯৭৯৫

ছবি নাম মোবাইল

গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পসমূহ

উপজেলা সাব-রেজিঃ অফিস উপজেলার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন একটা প্রতিষ্ঠান। উক্ত অফিসের মাধ্যমে সকল প্রকার জমিজমা ক্রয়-বিক্রয়ের দলিল করা হয়। উক্ত অফিসের অনেক গুরুত্বপূর্ন প্রকল্প রয়েছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন প্রকল্প হচ্ছে উপজেলা বাসির জমি রেজিষ্ট্রেশন যেন সহজ থেকে সহজতর হয় তার সার্বিক ব্যবস্থা করা । শৈলকুপা উপজেলা সাব-রেজিঃ অফিস উপজেলা বাসির সেবা প্রদান করা জন্য সবসময় তাদের দ্বার উন্মূক্ত করে রেখেছে। এবং উপজেলা সাব-রেজিঃ অফিস সব সময় চেষ্টা করবে জনগনের জমি সংক্রান্ত সার্বিক সমাধান করতে।

উপজেলা সাব রেজিস্ট্রারের কার্যালয়,ঝিনাইদহ সদর, ঝিনাইদহের পুরাতন জেলখানার পাশে অবস্থিত।

ফোনঃ ০৪৫১-৬১৩৮২

মোবাইলঃ ০১৭১২৭৫৯৭৯৫

ই-মেইলঃ hafigsrbd@yahoo.com